হাওয়াপাগলা পাখটিভিস্ট বন্ধুটি গুমরে কাঁদে

অতিথি লেখক এর ছবি
লিখেছেন অতিথি লেখক (তারিখ: বিষ্যুদ, ০৮/০৯/২০২২ - ১২:৩১পূর্বাহ্ন)
ক্যাটেগরি:

অধিক কী বলি আর
পাখটিভিস্ট বন্ধু ওয়াছিম কাগমারির কথা।
হলে গেনু পরস্ত্রীক, 'হাওয়া' সিনামাটি অবলোকিনু
বাইর হইতে না হইতে কুথা হতে আসিয়া সে ঠাসিল কলার মম।
হুঙ্কারিয়া শুধাল কুশল, খেলায়েত কবি! শালিকের মাংস দিয়া ভাতভুত খেয়ে
খুব মুটাগাটা হয়েছস দেহি! তারপর সে দৃষ্টি হানে হাওয়াসাথী পরস্ত্রীর দিকে,
হাসে কিটিকিটি।

আমি পড়ি মহা মুশকিলে। শালিকের মাংস আমি কেন খাব? পাবই বা কুথা?
সে কথা মানে না বন্ধু ওয়াছিম কাগমারি। দেশের সে মস্ত পাখটিভিস্ট। প্রায়শ
সে বনে জঙ্গলে গিয়া বেখেয়াল পাখপাখালির গোড়ালিতে সুতা বান্ধে, আজব মেশিন
দিয়া হাওরে বাঁওড়ে করে পাখির শুমার। 'পাখসরজমিন (স্বাদ বাদ)' নামে একটি ভারি বহি
বিশটি বচ্ছর ধরে চলিছে লিখিয়া। কুথাও পাখির 'পরে অত্যাচার হলে
আদমবন্ধন করে গালাগালি করে বন্ধু ওয়াছিম কাগমারি। তাই সে আমার প্রশ্ন
হেলায় উড়ায়া দিয়া বলে, হাওয়া দেখে আপামর পামরের পাল
কামড়ে কামড়ে খায় শালিকের ফ্রাই ঝাল ঝাল। তুই কি ভাবস
আমি কিছুই জানি না? তারপরে চোখ টিপে শুধায় সে, লগে ইনি কিডা?
শালিকা নাকি?

আমি তারে বুঝাতে চেষ্টিনু, শালিকের গায়ে মাংস চর্বি হাড্ডি ছটাকও হবে না। মুরগি
ফেলে কেন খাব শালিকের মাংস? ওয়াছিম মানে না যুক্তি কুন। বলে মুরগির কেজি
লাখ টাকা দাম। মাগনা শালিক পাইলে ছাইড়া দিবি তুই? চল তবে পিজ্জা খাওয়া।
নতুবা এখনই দিব হোসনে ভাবীকে বলে। আর বনবিভাগের বনহুর ডেকে ফাঁসায়ে মামলায়
চাখাব জেলের রুটি জরিমানা কুটি কুটি। এইরূপে সে আমার হাওয়া সিনামার ব্যয়
বাড়াইয়া দেয় শতগুণ। পিজ্জা খাওয়া শেষে তুলে ফান্টা ঢেঁকুর বলে ওয়াছিম কাগমারি,
হাওয়া দেখে বখে গেলি খেলায়েত। কিন্তু কুন লাভ নাই। যখনই শালিক খাবি,
আমি এসে পিজ্জা লব খেয়ে। এভরি ব্রেথ ইউ টেক, এভরি মুভ ইউ মেক, এভরি
বার্ড ইউ বেক, এভরি ইষ্টেপ ইউ টেক, আউলবি ওয়াছিম!
এই বলে ঠাঠা এসে ফিরে যায় সে সিনামার হলে, পিকেটিঙে।

দুই সপ্তা পরে আমি কুথা হতে যাইতেছি কুথা যেন
পথমধ্যে অকস্মাৎ আমায় খাবলে ধরে ওয়াছিম কাগমারি। ফুঁপায়ে কেন্দে বলে,
দুস্ত একটা পরামর্শ দে রে। হাওয়া দেখে যদি কুন মেয়েলোক বখে যায়
সামলাবি কেমনে? চল তরে পিজ্জা খাওয়াই। জোরজার করে মোরে
লয়ে যায় সে পিজ্জার দুকানে। বলে, মনে কর হাইপথেটিকালি
কারও বিবি যদি হাওয়া সিনামাটি দেখে ব্রেনোয়াশে ভুগে চান মাঝি সেজে
লুঙ্গি পরে করে ঘুরাঘুরি
আর বৈঠকখানায় বসে শেভ করে বগলের লোম
আর নিরীহ পতিকে ডাকে 'naughty ছেলে' বলে, তবে পতিটি কমপ্লেন করবে কুন আপিসের পানে?
বন বিভাগের কথা কোসনে, কারণ আমি পরথম উহাদেরই করেছিনু ফোন। বেটারা আমার কথা
শুনে বলে, বিবি যদি শালিকের মাংস খায়, তবেই আইসেন, নতুবা নহে। রাখি তবে ছালামালাকুম।
ফান্টার ঢেঁকুর তুলে আমি বলি, হাইপথেটিকালি, বিবির বাপের বাড়ি যদি হয় কলা- কিম্বা কাঁঠালবাগান
সেগুনবাগিচা কিংবা বনানী চামেলীবাগ এলিফেন্ট রোড
তারে ধরে লম্বা কুন বৈজ্ঞানিক নাম দিয়া ঢুকাইয়া দিতে পার বন্য প্রাণীর তফছিলে। অতঃপর দেখ না, কী হয়?
বন্যপ্রাণীর কি শুধু গোস্ত আছে, মন নাই? উহা বিগড়াইলেও শক্ত একটা মামলা হতে পারে।
হাউমাউ কেন্দে উঠে ওয়াছিম কাগমারি, শ্বশুরবাড়িটি তার শান্তিনগরে।
দাড়ি ছিঁড়ে আহাজারি করে সে, পোড়ার দেশে বন বিভাগ আছে
কিন্তু মামলা করে সিনামার পিছনে গুঁজিতে কাঠি শক্ত কুন মন বিভাগ নাই।

----------------------
নাম: খেলায়েত
পেশা: কবি


মন্তব্য

ওডিন এর ছবি

এভরি ব্রেথ ইউ টেক, এভরি মুভ ইউ মেক, এভরি
বার্ড ইউ বেক, এভরি ইষ্টেপ ইউ টেক, আউলবি ওয়াছিম (ছাগ

গুরু গুরু

ওডিন এর ছবি

কবি খেলায়েতকে নিশ্চই বেগুনী-মডু হিংসে করে হাচলত্ব দিচ্ছে না৷

নতুন মন্তব্য করুন

এই ঘরটির বিষয়বস্তু গোপন রাখা হবে এবং জনসমক্ষে প্রকাশ করা হবে না।