একটি ভৌতিক গল্পঃ মাঝ-দুপুরে গভীর জঙ্গলে

কীর্তিনাশা এর ছবি
লিখেছেন কীর্তিনাশা (তারিখ: রবি, ০৪/০৭/২০২১ - ৯:৩৯পূর্বাহ্ন)
ক্যাটেগরি:

মাঝ-দুপুরে এক অতি গভীর জঙ্গলের মধ্যে দিয়ে একা যাচ্ছিল নয়ন। বেলা যে মাঝ-দুপুর তা কে বলবে? বড় বড় ঘন গাছের কারণে পুরো জঙ্গলে গা ছমছমে অন্ধকার। যেন সন্ধ্যা ঘনিয়েছে। দুরু দুরু ভয় আর শঙ্কা নিয়ে নয়ন জোর কদমে হাঁটতে থাকে। আর মনে মনে নিজেকে সাহস দেয় – ভূত-প্রেত বলতে দুনিয়ায় কিছু নাই। সব দুর্বল মনের কল্পনা।

পুরো জঙ্গলে একটু পাতা পড়ার শব্দও নেই। বাতাস নেই, আলো নেই, সে এক গুমট অবস্থা। তার মাঝেই ডান দিকে অদূরে একটা বড় গাছের দিকে নয়নের দৃষ্টি চলে যায় – ও কী ! গাছের ডালে ওটা কী দুলছে? ওখানে শাদা শাড়ি এলো কোথা থেকে? ভয়ে নয়নের চোখ বড় বড় হয়ে যায়। সে থমকে দাঁড়ায়।

তখন একটা নারী কণ্ঠ নাঁকি সুরে বলে ওঠে – আঁরেঁ মঁনুঁ ডঁরাঁইঁস নাঁ। মোঁর শাঁদাঁ কাঁপুঁড়ঁডাঁ এঁট্টুঁ হুঁগাঁইঁতেঁ দিঁছিঁ।
নয়ন ভয়ে তোতলায় – কে-ক-কে ? ক্কে ক-কথা বলে ?
আরেকটা নারী কণ্ঠ হি হি করে হেসে ওঠে, বলে – ওঁরেঁ চিঁনোঁ নাঁ ? ওঁ তো শাঁকচুঁন্নি বুড়ি।
নতুন কণ্ঠ শুনে নয়ন আরো ভরকে যায়। জিজ্ঞেস করে – তুত-তুমি কে ? তুমি কে?
এবার এক পুরুষ ফিঁচকা কণ্ঠে হে হে করে হেসে বলে – আঁরেঁ তাঁও জাঁনিঁস নাঁ ? ওঁ হঁইঁলঁ শ্যাঁওঁড়াঁ গাঁছেঁর পেঁত্নীঁ।
ভয়ে জমে যেতে যেতে নয়ন শুধায় – আ আ আপনে ক্কে ?
আরেকটা পুরুষ কণ্ঠ গম গম করে ওঠে – ওঁ হঁইঁলোঁ গিয়া কাঁনাঁউঁলাঁ ?
নয়ন আতঙ্কে আর কথা বলতে পারে না। তবে মনে তার জিজ্ঞাসা – ইনি আবার কে ?
নতুন এক পুরুষ কণ্ঠ ঘর ঘর করে ওঠে – ঐঁ ব্যাঁটাঁ মাঁমঁদোঁ। আঁর আঁমিঁ স্কন্ধ-কাঁটাঁ।
প্রচণ্ড ভয়ে জমে যাওয়া নয়ন মনে মনেই জানতে চায় – আর কেউ নাই ?
এবার সবগুলো ভুতে সমস্বরে বলে – থাকবে না কেন ? তুই আছিস তো। দুইদিন আগে ঠাডা পইড়া মরছোস ভুইল্লা গেছোস?
সাথে সাথে নয়নের শরীর হালকা হয়ে যায়। বাতাসে মিলিয়ে যেতে যেতে লজ্জায় মুচকি হেসে বলে সে – নতুন ভূত হইছি তো, ভুইল্লা যাই খালি।


মন্তব্য

Nushan এর ছবি

দেঁতো হাসি সেটাই।

কীর্তিনাশা এর ছবি

দেঁতো হাসি

-------------------------------
আকালের স্রোতে ভেসে চলি নিশাচর।

হিমু এর ছবি
কীর্তিনাশা এর ছবি

দেঁতো হাসি

-------------------------------
আকালের স্রোতে ভেসে চলি নিশাচর।

এক লহমা এর ছবি

হো হো হো

--------------------------------------------------------

এক লহমা / আস্ত জীবন, / এক আঁচলে / ঢাকল ভুবন।
এক ফোঁটা জল / উথাল-পাতাল, / একটি চুমায় / অনন্ত কাল।।

এক লহমার... টুকিটাকি

কীর্তিনাশা এর ছবি

হো হো হো

-------------------------------
আকালের স্রোতে ভেসে চলি নিশাচর।

মন মাঝি এর ছবি

হ, পুরান ভূতে ভাত পায় না নতুন ভূত আইসে! কলিকাল, ঘোর কলিকাল!!! হো হো হো

****************************************

কীর্তিনাশা এর ছবি

ভালো বলেছেন, দাদা দেঁতো হাসি

-------------------------------
আকালের স্রোতে ভেসে চলি নিশাচর।

খেকশিয়াল এর ছবি

হাহাহাহাহা মজা পাইলাম হো হো হো

-----------------------------------------------
'..দ্রিমুই য্রখ্রন ত্রখ্রন স্রবট্রাত্রেই দ্রিমু!'

কীর্তিনাশা এর ছবি

তবেই আমি ধন্য হলাম দেঁতো হাসি

-------------------------------
আকালের স্রোতে ভেসে চলি নিশাচর।

নীড় সন্ধানী এর ছবি

কী মজার একটা গল্প হো হো হো
অনুমতি দিলে এটা বাচ্চাদের একটা পত্রিকার জন্য নিতে চাই।

‍‌-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.--.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.
সকল লোকের মাঝে বসে, আমার নিজের মুদ্রাদোষে
আমি একা হতেছি আলাদা? আমার চোখেই শুধু ধাঁধা?

কীর্তিনাশা এর ছবি

অবশ্যই নীড়'দা। খুব খুশি হবো ছাপা হলে।

-------------------------------
আকালের স্রোতে ভেসে চলি নিশাচর।

কল্যাণ এর ছবি

গড়াগড়ি দিয়া হাসি

______________
আমার নামের মধ্যে ১৩

কীর্তিনাশা এর ছবি

দেঁতো হাসি

-------------------------------
আকালের স্রোতে ভেসে চলি নিশাচর।

সোহেল ইমাম এর ছবি

লইজ্জা লাগে

---------------------------------------------------
মিথ্যা ধুয়ে যাক মুখে, গান হোক বৃষ্টি হোক খুব।

কীর্তিনাশা এর ছবি

দেঁতো হাসি

-------------------------------
আকালের স্রোতে ভেসে চলি নিশাচর।

নতুন মন্তব্য করুন

এই ঘরটির বিষয়বস্তু গোপন রাখা হবে এবং জনসমক্ষে প্রকাশ করা হবে না।